চেন্নাইকে হারাল কেকেআর দুরন্ত বোলিংয়ে: ক্রীড়া ডেস্ক, নতুন খবর |

দুরন্ত বোলিং নাইটদের৷ আর তার জেরেই প্রায় হারতে বসা ম্যাচ জিতে নিল কলকাতা নাইট রাইডার্স৷ বুধবার আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে চেন্নাই সুপার কিংসকে হারিয়ে পয়েন্ট তালিকায় তিন নম্বরে উঠে এল কেকেআর৷

১৬৮ রান তাড়া করতে নেমে ইনিংসের ১৫ ওভার পর্যন্ত ম্যাচের রাশ নিজেদের হাতে ছিল সুপার কিংসের৷ কিন্ত তারপর একের পর এক উইকেট হারিয়ে ম্যাচ নাইটদের হাতে তুলে দেয় টিম ধোনি৷ শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৫৭ রানের বেশি তুলতে পারেনি সুপার কিংস৷ ১০ রানে ম্যাচ জিতে নেয় কেকেআর৷ সেই সঙ্গে পাঁচ ম্যাচে তিনটি জিতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় তিন নম্বরে উঠে এলে নাইটরা৷

রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা মন্দ হয়নি সিএসকে৷ গত ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ১০ উইকেটে জেতানো সিএসকে-কে দুই ওপেনার শেন ওয়াটসন ও ফ্যাফ ডু’প্লেসি এদিন ভালো শুরু করেন৷ ৩.৪ ওভারে ৩০ রান যোগ করার পর শিভম মাভি ডু’প্লেসিকে ডাগ-আউটে ফেরান৷ কিন্তু তার ওপেনিং পার্টনার ফিরে গেলেও নিজের ছন্দেই ব্যাটিং করেন ওয়াটসন৷

দ্বিতীয় উইকেটে অম্বাতি রায়ডুর সঙ্গে ৫১ বলে ৬৯ রান যোগ করে সিএসকে জয়ের পথে এগিয়ে নিয়ে যান ওয়াটসন৷ কিন্তু রায়ডু ব্যক্তিগত ৩০ রানে আউট হওয়ার পর সুপার কিংসের আর কোনও বড় পার্টনারশিপ হয়নি৷ রায়ডু আউট হওয়ার পর চার নম্বরে এদিন ব্যাটিং করতে নামেন সিএসকে ক্যাপ্টেন মহেন্দ্র সিং ধোনি৷ কিন্তু ওয়াটসন-ধোনি পার্টনারশিপ গড়ে ওটার আগেই সুনীল নারিনের বলে ওয়াটসন এলবিডব্লিউ হয়ে ডাগ-আউটে ফেরার পর ম্যাচে ফেরে কেকেআর৷

ওয়াটসন আউট হওয়ার সময় সুপার কিংসের স্কোর ছিল ১৩.১ ওভারে ১০১/৩৷ এর পর ধোনির পার্টনার হন স্যাম কারান৷ কিন্তু ১২৯ রানে ধোনি ও কারান দু’জনেই ফিরে যাওয়ায় ম্যাচ থেকে ক্রমশ দূরে সরতে থাকে চেন্নাই৷ কিন্তু কেদাব যাদব ও রবীন্দ্র জাদেজার মতো ব্যাটসম্যান ক্রিজে থাকা সত্ত্বেও শেষ তিন ওভারে ৩৯ রান তুলতে পারেনি সিএসকে৷ দুরন্ত বোলিং করে ম্যাচ নিজেদের পকেটে পুরে নেয় কেকেআর বোলাররা৷ রাসেলের ১৮ তম ওভারটাই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়৷ ২ ওভারে মাত্র ১৮ রান দিয়ে কারানের উইকেট নিয়ে দলকে জেতাতে বড় ভূমিকা নেন রাসেল৷

বাকিরাও দারুণ বোলিং করেন৷ ৪ ওভারে এদিন মাত্র ২৫ রান দেন প্যাট কামিন্স৷ এছাড়া বরুণ চক্রবর্তী ৪ ওভারে ২৮, নারিন ৪ ওভারে ৩১ এবং কমলেশ নাগরকাঠি ৩ ওভারে ২১ রান দিয়ে কেকেআর-কে দুর্দান্ত জয় এনে দেন৷ তবে ম্যাচের সেরা হন রাহুল ত্রিপাঠি৷ এদিন ৮১ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলেন তিনি৷ তার ব্যাাটিং দৌলতে ১৬৭ রান তুলেছিল নাইটরা৷

নতুন খবর//তুম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *