সসম্মানে যেতে দেওয়া উচিত ছিল মেসিকে: এনরিকে:ক্রীড়া ডেস্ক, নতুন খবর |

প্রিয় ক্লাবের সঙ্গে আইনি যুদ্ধে না গিয়ে তাদের দাবির কাছে নতিস্বীকার করে নিয়েছেন। তবে ক্লাবের সঙ্গে তার অঘোষিত যুদ্ধ শেষ হয়নি লিওনেল মেসির। ফুটবল ওয়েবসাইটে আর্জেন্টাইনের মন্তব্য শুনে এমনটাই মনে করছেন অনুরাগীরা। এমতাবস্থায় প্রাক্তন ছাত্র লিওনেল মেসির পাশে দাঁড়িয়ে বার্সেলোনার প্রাক্তন কোচ লুইস এনরিকে শনিবার জানালেন, মেসিকে সসম্মানে যেতে দেওয়া উচিত ছিল বার্সেলোনার।

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে নামার আগে স্পেনের জাতীয় দলের কোচ বলছেন, বিষয়টা যেহেতু অত্যন্ত সংবেদনশীল তাই বার্সার একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছানো উচিত ছিল। এনরিকের কথায়, ‘আমার মনে হয় ক্লাব একজন ফুটবলারের উপরে। আর মেসির সঙ্গে বার্সেলোনার শুরু থেকে একটা সুমধুর সম্পর্ক। ১৮৮৯ তৈরি হওয়া পৃথিবীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ এই ফুটবল ক্লাবের ঝুলিতে সমস্ত মেজর খেতাব রয়েছে। লিও উল্লেখযোগ্যভাবে বার্সার অগ্রগতিতে সহায়তা করেছে। তাই আমার মনে হয় দু’পক্ষের মধ্যে একটা রফা হওয়া উচিত ছিল। যেটা অবশ্যই মেসির পক্ষে।’

উল্লেখ্য, ২০১৪ থেকে ২০১৭ বার্সেলোনার হেড কোচের পদে আসীন ছিলেন ক্লাবের প্রাক্তনী লুইস এনরিকে। ২০১৫ এনরিকের প্রশিক্ষণেই ত্রিমুকুট জিতেছিল বার্সেলোনা। তাই খুব কাছ থেকে মেসি-বার্সেলোনার সম্পর্ক প্রত্যক্ষ করেছেন বর্তমান স্পেনের জাতীয় দলের কোচ। আর সবকিছু উপলব্ধি করে এনরিকে বলছেন, ‘আজ না হোক কাল মেসি বার্সেলোনা ছাড়বে। তারপরও বার্সেলোনা মেসিকে ছাড়াই ট্রফি জিতবে। অন্যদিকে মেসি অন্য ক্লাবে গিয়েও স্ব-মহিমায় ভাস্বর হবে।’

উল্লেখ্য, বায়ার্নের কাছে বিধ্বস্ত হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায়ের পর ক্লাবের বিরুদ্ধে একপ্রকার যুদ্ধ ঘোষণা করেন মেসি। ব্যুরোফ্যাক্সের মাধ্যমে গত সপ্তাহের শুরুতে বার্সেলোনা ম্যানেজমেন্টকে তিনি ক্লাব ছাড়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেন। এরপর থেকে দীর্ঘ টালবাহানা। রিলিজ ক্লজের গেরোয় মেসির অন্য ক্লাবে যাওয়ার রাস্তা বন্ধ করে দেয় বার্সেলোনা। পারলে রিলিজ ক্লজের বিরুদ্ধে আদালতে যেতে পারতেন মেসি। কিন্তু বার্সেলোনা কিংবদন্তি তা করেননি। বরং সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করে আগামী মরশুম অবধি বার্সাতেই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শুক্রবার।

গোল ডট কমকে মেসি জানিয়েছেন, ‘আমি বার্সেলোনার বিরুদ্ধে কখনোই আদালতে যেতে চাইনি কারণ ক্লাবকে আমি ভালোবাসি। এখানে আসার পর এই ক্লাব আমায় সবকিছু দিয়েছে। আমি এখানে আমার জীবন তৈরি করেছি। বার্সা যেমন আমায় সব দিয়েছে তেমনই আমিও বার্সাকে সব উজাড় করে দিয়েছি।’

নতুন খবর/তুম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *