রাব্বির শতরান, ফর্মে ফিরেছেল ইমরুলও, ক্রীড়া প্রতিবেদক ,নতুন খবর

জাতীয় দলের খেলার যোগ্যতা কক্সবাজারের মাঠেই প্রমাণ দেখিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। এবার দেখালেন রাব্বি ও ইমরুল। দুজনেই চমৎকার রান তুলছেন। গতকাল ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে দলকে উদ্ধার করেছেন ইয়াসির আলি রাব্বি ও ইমরুল কায়েস। মুশফিকের সেঞ্চুরির জবাবে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তরুণ মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যান রাব্বি। আবার বল হাতে নাইমের জবাব দিয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার সানজামুল ইসলাম। এবং দিন শেষে এগিয়ে রয়েছে রাব্বির পূর্বাঞ্চলই।

এর আগে উত্তরাঞ্চলের প্রথম ইনিংস শেষ হয় ১৭২ রানে। যেখানে ছিল মুশফিকুর রহিমের সেঞ্চুরি। তিনি ১৫৮ বলে করেছিলেন ১৪০ রান।

নাইম হাসানের ঘূর্ণিতে মুশফিকদের ইনিংসের এই ধস নামে। নাইম ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো ৮ উইকেট নিতে ১০৭ রান খরচ করেন। জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংস খেলতে গিয়ে শুরুতেই বিপর্যয়ে পড়ে পূর্বাঞ্চল। মাত্র ৪.১ ওভার ব্যাট করে ২ উইকেট হারায় তারা।

মাত্র ৩ রান দুই উইকেট হারানোর পর আজ দলীয় ২৭ রানে তৃতীয় উইকেট হারিয়েছিল পূর্বাঞ্চল। এরপর চতুর্থ উইকেটে অধিনায়ক ইমরুল ও রাব্বি গড়েন ১৩৭ রানের জুটি। নিজের চিরচেনা ছন্দে ব্যাট করে ১৫৩ বলে ৭৬ রানের ইনিংস খেলেন ইমরুল। আশা জাগিয়েও করতে পারেননি সেঞ্চুরি।

অধিনায়ক হতাশ করলেও সেঞ্চুরি ঠিকই তুলে নিয়েছেন ইয়াসির রাব্বি। প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে সপ্তম সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ১৩৪ রানে অপরাজিত রয়েছেন তিনি। প্রায় সাড়ে ছয় ঘণ্টায় ২৭১ বল মোকাবেলা করে ১৩ চার ও ২ ছক্কা হাঁকিয়েছেন রাব্বি।

তবে হতাশ করেছেন আফিফ হোসেন (৫৩ বলে ২৬), নাসির হোসেন (২১ বলে ৩) ও জাকির হাসানরা (৩ বলে ১)। দিন শেষে ৭ উইকেটে ২৬১ রান করেছে পূর্বাঞ্চল। তৃতীয় দিন রাব্বির সঙ্গে খেলতে নামবেন ২৬ বলে ৭ রান করা নাইম হাসান। বল হাতে উত্তরাঞ্চলের পক্ষে ৪২ ওভারে মাত্র ৯২ রান খরচায় ৫ উইকেট নিয়েছেন সানজামুল ইসলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *