পাকিস্তানের প্রেতাত্মা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরকারীরা : আমু ,নিজস্ব প্রতিবেদক, নতুন খবর |

কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমু। তিনি বলেছেন, যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর করেছে তারা এদেশের স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধ ও সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করে না। ওরা পাকিস্তানের প্রেতাত্মা। ভাস্কর্য ভাঙার পেছনে যারা ইন্ধন দিয়েছে তাদের খুঁজে বের করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে আমির হোসেন আমু বলেন, বঙ্গবন্ধু, বাঙালি ও বাংলাদেশ এক অবিচ্ছেদ্য শব্দ। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে আঘাত মানে বাঙালির হৃদপিণ্ডে আঘাত, বাংলাদেশের ওপর আঘাত। এ আঘাত কোনো অবস্থায় মেনে নেয়া যায় না । এটা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর করেছে, তারা এদেশের স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধ ও সার্বভৌমত্বে বিশ্বাস করে না। ওরা পাকিস্তানের প্রেতাত্মা। তারা বাংলাদেশের সংবিধানেও বিশ্বাসী নয়। এসব স্বাধীনতা বিরোধীদের সংবিধান অমান্য করার অপরাধে কঠিন শাস্তি হওয়া উচিত।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য যারা ভাঙচুর করেছে শুধু তাদেরকেই নয়, যারা দেশকে অস্থিতিশীল করে পাকিস্তানের এজেন্ডা বাস্তবায়নে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বারবার আঘাত হানতে চায় সেইসব ইন্ধনদাতা ও তাদের পৃষ্ঠপোষকদেরও আইনের আওতায় আনার দাবি জানান আমু।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তিদের যেকোনো ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় দেশবাসীকে সতর্ক ও ১৪ দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান আওয়ামী লীগের এই প্রবীণ নেতা।

নতুন খবর//তুম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *