জোকোভিচ আঘাতপ্রাপ্ত বিচারকের পাশে: ক্রীড়া ডেস্ক, নতুন খবর |

করোনা অতিমারিতে বিপর্যস্ত টেনিস মৌসুমে আরও একটা স্থায়ী ছবি হয়ে থাকল রবিবার নোভাক জোকোভিচের মারা বলে আহত লাইন জাজের বিতর্কিত ঘটনা। যে জন্য তাকে বহিষ্কার করা হয় যুক্তরাষ্ট্র ওপেন থেকে।

রবিবারের ঘটনার পরে জোকোভিচ সাংবাদিকদের সামনে আসেননি। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিবৃতি দিয়ে ক্ষমা চান। এ রকম একটা পরিস্থিতিতে ওই মহিলা লাইন জাজকে ফেলার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন। যিনি আবার জোকোভিচের ভক্তদের রোষের মুখে পড়েছেন। তবে সার্বিয়ার তারকা তার পাশে দাঁড়িয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় জোকোভিচ লিখেছেন, ‘আমাদের সবার যে লাইন জাজের আঘাত লেগেছে তার পাশে থাকা দরকার। উনি তো ভুল কিছু করেননি। আমি চাই, এই সময়টায় ওই লাইন জাজকে সমর্থন করুন আপনারা। ওর খেয়াল রাখতে হবে এখন।’

সার্বিয়ার তারকা জয়ের দৌড়ে সব চেয়ে এগিয়ে ছিলেন। কারণ তার অপর দুই প্রধান প্রতিপক্ষ রজার ফেডেরার এবং রাফায়েল নাদাল এ বার খেলছেন না। অনেকে আশা করেছিলেন জোকোভিচ যুক্তরাষ্ট্র ওপেনেই ১৮ গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের লক্ষ্য পূরণ করে ফেলবেন। পুরুষদের মধ্যে সর্বাধিক গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী রজার ফেডেরার (২০) এবং রাফায়েল নাদালের (১৯) সঙ্গে ব্যবধানটাও কমিয়ে ফেলতে পারবেন। কিন্তু সেই আশা মিটল কোথায়!

চলতি মাসের শেষের দিকে অবশ্য ফরাসি ওপেন শুরু হচ্ছে। বিশ্বের এক নম্বরের কাছে তাই ফের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের সুযোগ থাকছে। কিন্তু প্রশ্ন উঠছে এই ঘটনার পরে সার্বিয়ার তারকার ভাবমূর্তি কি আগের মতো থাকবে? সাত বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী জন ম্যাকেনরো কোর্টে একাধিক বার বিভিন্ন ঘটনায় বিতর্কে জড়িয়েছেন খেলোয়াড়জীবনে। তিনি মনে করেন, এই ঘটনার প্রভাব এত সহজে কাটবে না। ‘নোভাক চাপে পড়ে যাওয়ার জন্যই এমন একটা কান্ড হল,’ বলেছেন ম্যাকেনরো। যিনি নিজেও ১৯৯০ অস্ট্রেলীয় ওপেন থেকে বহিষ্কৃত হয়েছিলেন।

ম্যাকেনরো আরও বলেছেন, ‘নোভাকের পছন্দ হোক বা না হোক, বাকি খেলোয়াড়জীবনে ওকে টেনিসের ব্যাড বয় হিসেবে দেখা হবে। এটাই দেখার যে, নোভাক এই ব্যাপারটা কী ভাবে সামলায়।’ তিনি আরও যোগ করেছেন, ‘নোভাক যদি সব মেনে নেয়, তা হলে দ্রুত ধাক্কাটা কাটিয়ে উঠবে। ঘুরে দাঁড়াতে ওকে অনেক কিছু করতে হবে। তবে একটা কথা বলাই যায়, খেলোয়াড় জীবনে লেগে যাওয়া এই দাগটা ও মুছতে পারবে না।’

ম্যাকেনরো জানেন, টেনিসে খারাপ ভাবমূর্তি কাটিয়ে ওঠা কতটা কঠিন। তবে জোকোভিচের মতো এত অভিজ্ঞ এক জন খেলোয়াড় কী করে এ রকম একটা ভুল করলেন, তা ভেবে অবাক হচ্ছেন তিনি। ‘যখন সবাই ভাবছে, যাক ২০২০ মৌসুমে আর খারাপ কিছু হবে না। তখনই এ রকম একটা ঘটনা ঘটল। আমরা আগেই আলোচনা করছিলাম যে, এই প্রতিযোগিতায় জোকোভিচ যদি নিজেই নিজেকে না হারায় তা হলে ওকে চ্যাম্পিয়ন হওয়া থেকে আটকানো মুশকিল। তবে এ রকম কিছু যে হতে পারে স্বপ্নেও ভাবিনি,’ বলেছেন ম্যাকেনরো।

নতুন খবর/তুম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *