খেতাব জয়ের লড়াইয়ে মুখোমুখি জোকোভিচ-নাদাল ক্রীড়া ডেস্ক, নতুন খবর |

রবিবার ফরাসি ওপেনের ফাইনালে নোভাক জোকোভিচের বিরুদ্ধে ফেভারিট হিসেবেই খেলতে নামবেন রাফায়েল নাদাল, এ ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই। বিশ্বের এক ও দু’নম্বরের লড়াই। র‌্যাঙ্কিংয়ে নাদাল দ্বিতীয় হলেও তিনিই ‘কিং অব ক্লে’। এই সারফেসে স্প্যানিশ তারকার দাপট প্রশ্নাতীত। সর্বাধিক ১৩ বারের ফরাসি ওপেন চ্যাম্পিয়ন তিনি। এবার জিতলে ১৪বার ফরাসি ওপেন চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি সর্বাধিক গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের সংখ্যায় কিংবদন্তি রজার ফেডেরারকে (২০) ছুঁয়ে ফেলবেন রাফায়েল নাদাল। তাই জোকার কাঁটা সরিয়ে ফেলেই কীর্তির পথ পাকা করতে চান তিনি।

খুব ভালো ফর্মে রয়েছেন বিশ্ব টেনিসের সর্বকালের অন্যতম সেরা এই বাঁহাতি প্লেয়ার। শেষ চারে আর্জেন্তিনার শোয়ার্জম্যানকে স্ট্রেট সেটে ৬-৩, ৬-৩, ৭-৬ (৭-০) হারান তিনি। তৃতীয় সেটে প্রতিপক্ষ কিছুটা সমস্যায় ফেলেছিলেন নাদালকে। কিন্তু শেষরক্ষা করতে পারেননি।

জোকোভিচের কাছে রবিবারের ফাইনাল অপেক্ষাকৃত কঠিন। কারণ সেমি-ফাইনালে গ্রিসের সিটসিপাসকে ম্যারাথন লড়াইয়ে তিনি হারিয়েছেন। প্রথম দু’টি সেট জকোভিচ ৬-৩, ৬-২ গেমে জিতে এগিয়ে গেলেও পরের দু’টি সেট ৭-৫, ৬-৪ গেমে জিতে দারুণভাবে লড়াইয়ে ফিরে আসেন সিটসিপাস। কিন্তু পঞ্চম সেটে গ্রিক খেলোয়াড়কে প্রায় দাঁড় করিয়ে রেখে (৬-১) হারান জকোভিচ। ঘাড়ের চোট নিয়ে খেলছেন সার্বিয়ান তারকা। সেমি-ফাইনালে দীর্ঘ লড়াই ও চোটের ধকল সামলানোর উপর নির্ভর করছে জোকোভিচের ফাইনালের ভাগ্য।

১৭টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়ন জোকোভিচ মাত্র একবারই ফরাসি ওপেনে চ্যাম্পিয়ন (২০১৬) হয়েছেন। এবার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন জোকার। ফলে এই মৌসুমে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের খরা কাটাতে ফরাসি ওপেন জিততে মরিয়া নাদাল। তবে পরিসংখ্যানে কিছুটা এগিয়ে রয়েছেন জোকোভিচ। ২০১৫ সালের পর থেকে গ্র্যান্ড স্ল্যামসহ অন্যান্য টুর্নামেন্টে দু’জন মুখোমুখি হয়েছেন সাতবার। ছ’বারই জিতেছেন জকোভিচ। পাঁচ বছর আগে ফরাসি ওপেনে নাদাল ও জোকোভিচ মুখোমুখি হয়েছিলেন। সেবার শেষ হাসি হেসেছিলেন জোকোভিচ। রবিবার ক্লে কোর্টের মুকুট কে পরবেন সেটাই এখন দেখার।

নতুন খবর//তুম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *