সৈয়দপুরে সাকিব হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন Reviewed by Momizat on . নীলফামারী প্রতিনিধি : নীলফামারীর সৈয়দপুর সরকারি কারিগরি কলেজের ৮ম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্র সিরাজুল ইসলাম মনির খান সাকিব হত্যার ব্যাপারে বিচার দাবী ও খুনিদের অনতিবিল নীলফামারী প্রতিনিধি : নীলফামারীর সৈয়দপুর সরকারি কারিগরি কলেজের ৮ম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্র সিরাজুল ইসলাম মনির খান সাকিব হত্যার ব্যাপারে বিচার দাবী ও খুনিদের অনতিবিল Rating:
You Are Here: Home » আন্তর্জাতিক » Uncategorize » সৈয়দপুরে সাকিব হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

সৈয়দপুরে সাকিব হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

নীলফামারী প্রতিনিধি : নীলফামারীর সৈয়দপুর সরকারি কারিগরি কলেজের ৮ম শ্রেনীর মেধাবী ছাত্র সিরাজুল ইসলাম মনির খান সাকিব হত্যার ব্যাপারে বিচার দাবী ও খুনিদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার করে কঠিন শাস্তির দাবীতে  মানববন্ধন করেছে সহপাঠৗ ও সচেতন এলাকাবাসী। শনিবার (১৭ই জুন)দুপুরে সাকিব হত্যার বিচারের দাবীতে সৈয়দপুরের সকল স্তরের শিক্ষার্থীর ব্যানারে সৈয়দপুর প্রেসক্লাব এর সামনে এক বিশাল মানববন্ধনে সরকারি কারিগরি কলেজের ছাত্র-ছাত্রী ছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা,সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনসহ অংশ গ্রহন করেন বিভিন্ন স্তরের সাধারন মানুষ। সাকিবের সহপাঠি, টেকনিক্যাল কলেজের ১০ম শ্রেনির ছাত্রী রিফাহ সানজিদা অনন্যার সঞ্চলনায় এ সময়ে বক্তব্য রাখেন, সাকিবের বাবা মো. হাবিবুর রহমান খান, সাকিবের সহপাঠি কাজী তানজিজুল হক তানজিল, খন্দকার আবিদা সুলতানা রিয়া, মুজাহেদীন ইসলাম চৌধুরী, আব্দুল আউয়াল হৃদয়, কাজী নাইম ইজাজ, মানববন্ধনের আয়োজক, সৈয়দপুর সকল স্তরের শিক্ষার্থীদের পক্ষে আসাদুজ্জামান আসাদ, শিক্ষানগরী সৈয়দপুরের সাধারণ সম্পাদক , খুরশিদ জামান কাকন, আমাদের প্রিয় সৈয়দপুরের  সাংগঠনিক সম্পাদক, মিঠুন হাসান আয়ান, সেতুবন্ধুনের সভাপতি- আলমগীর হোসেন, পরিবতর্ন চাই নীলফামারী জেলার টিম লিডার- নাইমুল ইসলাম নয়ন, সৈয়দপুর বন্ধন শিল্পিগোষ্ঠির সাধারণ সম্পাদক- রইচ উদ্দিন রকি, ওয়ার্কাস পার্টি সৈয়দপুর শাখার সাধারণ সম্পাদক- রুহুল আলম, ব্লাড ডোনেট ফাউন্ডেশন’র সভাপতি- আব্দুল্লাহ চৌধুরী, ঢাকাস্থ সৈয়দপুর ছাত্র কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক- নাজির আহমেদ, টিফিন’র প্রতিষ্ঠাতা তানভীর ফুয়াদ প্রমুখ।।
বক্তারা সাকিব হত্যার দ্বিতীয় বর্ষ পেরিয়ে গেলেও এখনো এর বিচার না হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং অনতিবিলম্বে এর সুষ্ঠু বিচারের জোর দাবী তোলেন। বিচারে গড়িমসি হলে ভবিষ্যতে আরো কঠোর আন্দোলনে নামার ঘোষনা দেন।উল্লেখ্য: গত ২০১৫ সালের ১৩ জুন সাকিবের গলায় ফাঁস লাগানো লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটে সরকারি কারিগারি কলেজ সংলগ্ন আবাসিক এলাকায়।এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাওকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। মানববন্ধন শেষে সাকিব হত্যা বিচারের দাবীতে প্রশাসনের নিরব ভুমিকা বিরোধী স্লোগানে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে।

নতুনখবর/সোআ

Leave a Comment