সেই হারমান বাওয়েজার একি অবস্থা Reviewed by Momizat on . বিনোদন ডেস্ক : বাবা বিখ্যাত পরিচালক হ্যারি বাওয়েজা। তারই হাত ধরে বলিউডে যাত্রা শুরু হয়েছিল তার। ছবি করেছেন মোট পাঁচটি। সেগুলোও বক্সঅফিসে ডাহা ফ্লপ। বরং প্রিয়ঙ্ বিনোদন ডেস্ক : বাবা বিখ্যাত পরিচালক হ্যারি বাওয়েজা। তারই হাত ধরে বলিউডে যাত্রা শুরু হয়েছিল তার। ছবি করেছেন মোট পাঁচটি। সেগুলোও বক্সঅফিসে ডাহা ফ্লপ। বরং প্রিয়ঙ্ Rating:
You Are Here: Home » বিনোদন » সেই হারমান বাওয়েজার একি অবস্থা

সেই হারমান বাওয়েজার একি অবস্থা

বিনোদন ডেস্ক : বাবা বিখ্যাত পরিচালক হ্যারি বাওয়েজা। তারই হাত ধরে বলিউডে যাত্রা শুরু হয়েছিল তার। ছবি করেছেন মোট পাঁচটি। সেগুলোও বক্সঅফিসে ডাহা ফ্লপ। বরং প্রিয়ঙ্কা চোপ়়ড়া কিংবা বিপাশার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে কিছুটা লাইম লাইটে এসেছিলেন। হ্যাঁ ঠিকই, হারমান বাওয়েজাকে নিয়ে কথা হচ্ছে।

যার লুক নাকি খানিকটা গ্রীক গড খ্যাত হৃতিকের মতো! এমনটাই গুঞ্জন বলিউডে। রাকেশ রোশনের মতোই হ্যারি বাওয়েজাও তার সুদর্শন পুত্রকে সিনেমায় লঞ্চ করেন ২০০৮-এ। ছবির নাম ‘লাভ স্টোরি ২০৫০’। অপরিচিত হারমানের বিপরীতে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া নায়িকা। প্রিয়াঙ্কা তখন রীতিমতো স্টার। ছবিটি নিয়ে খুব হাইপ হলেও, মুক্তি পাওয়ার পরেই মুখ থুবড়ে পড়ে হারমানের প্রথম মুভি। তবে বলিউডে খবর ছড়িয়ে যায় যে, প্রেম করছেন প্রিয়াঙ্কা-হারমান।

পরবর্তী ছবি ‘হোয়াটস ইওর রাশি’। ছবির জুটি সেই  প্রিয়াঙ্কা-হারমান। নাহ‌্! কোনও ঝলক দেখাতে পারেনি এই ছবিটিও। হারমানের পরের ছবি ‘ভিকট্রি’। তবে এ বার নায়িকা বদল। অমৃতা রাওকে জুটি করে ফের সিলভার স্ক্রিনে এলেন তিনি। ছবির বিষয় ক্রিকেট-নির্ভর। আশা করা হয়েছিল, ক্রিকেট পাগল ভারতে ক্রিকেটে ভর করে বক্স অফিসে  সাফল্য আসবে। উহু, বিধিবাম এ বারও। ধীরে ধীরে সিলভার স্ক্রিন থেকে হারিয়ে যেতে থাকেন হারমান।
২০১৪-য় ‘ঢিশকিয়াওঁ’ এবং ‘চার সাহিবজাদে’ নামে দু’টি ছবিতে অভিনয়  করেন হরমন। এই ছবি দু’টির অবস্থা আগেরগুলোর চাইতে আরও খারাপ। সবাই প্রায় ভুলতেই বসেছেন এই নায়কের নাম। তবে তার লুকের জন্য সে সময় বেশ চর্চায় ছিলেন হারমান। অনেকগুলো ফ্যাশন শোতেও শো স্টপার ছিলেন তিনি।

সে সময়ের গুডলুকিং হিরোকে এখন কেমন দেখতে জানেন? এখনকার হরমনকে দেখলে চিনতেই পারবেন না। কিছু দিন আগে মুম্বাইয়ের একটি রেস্তোরাঁয় বন্ধুদের সঙ্গে ডিনার করতে গিয়েছিলেন তিনি। দেখা যায় সম্পূর্ণ বদলে গিয়েছেন এই অভিনেতা। দেখলে মনে হতে পারে ছত্রিশ বছরের হারমানের বয়সটা প্রায় দ্বিগুণ হয়ে গিয়েছে। এখনকার হারমানের সঙ্গে আগের হারমানকে মেলানোটা ভীষণই মুশকিল। হিন্দুস্তান টাইমস।

নতুনখবর/সোআ

Leave a Comment