মহানবীকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি, পাকিস্তানি যুবকের মৃত্যুদণ্ড Reviewed by Momizat on . আন্তর্জাতিক ডেস্ক : হযরত মুহাম্মদ(সাঃ)-কে নিয়ে ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করায় পাকিস্তানি এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে দেশটির এক আদালত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্মীয় অবমা আন্তর্জাতিক ডেস্ক : হযরত মুহাম্মদ(সাঃ)-কে নিয়ে ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করায় পাকিস্তানি এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে দেশটির এক আদালত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্মীয় অবমা Rating:
You Are Here: Home » আন্তর্জাতিক » মহানবীকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি, পাকিস্তানি যুবকের মৃত্যুদণ্ড

মহানবীকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি, পাকিস্তানি যুবকের মৃত্যুদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : হযরত মুহাম্মদ(সাঃ)-কে নিয়ে ফেসবুকে আপত্তিকর মন্তব্য করায় পাকিস্তানি এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে দেশটির এক আদালত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্মীয় অবমাননার ‘অপরাধে’ মৃত্যুদণ্ডের সাজা সম্ভবত এই প্রথম।

শনিবার পাঞ্জাবের বাহওয়ালপুরের সন্ত্রাস দমন আদালতের বিচারক সাবির আহমেদ ৩০ বছরের তাইমুর রাজাকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন। রবিবার পাকিস্তান একজন সরকারি কৌঁসুলি এ তথ্য জানান।

পাঞ্জাব পুলিশের সন্ত্রাস দমন শাখার বক্তব্য, ইসলামাবাদ থেকে প্রায় ৬০০ কিলোমিটার দূরে ওকারার বাসিন্দা তাইমুরকে গত বছর গ্রেপ্তার করা হয়।

পারিবারিকভাবে তাইমুর পাকিস্তানের সংখ্যালঘু শিয়া সম্প্রদায়ভুক্ত। তার বিরুদ্ধে ফেসবুকে ধর্ম অবমাননা করে মন্তব্য করার অভিযোগ দায়ের করেছিল কয়েকটি মুসলিম সংগঠন। সাজা ঘোষণার পর তাইমুরের আইনজীবী রানা ফিদা হুসেন বলেন, তার মক্কেল নির্দোষ, উচ্চতর আদালতে এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন তারা।

পাকিস্তানে ৯৭ শতাংশ মানুষই ইসলাম ধর্ম সম্প্রদায়ের। সে দেশে ধর্মের অবমাননা বরাবরই খুবই গুরুতর ইস্যু। সাজা মৃত্যুদণ্ড। গত বছর পাকিস্তানে পাস হয় বিতর্কিত সাইবার অপরাধ দমনমূলক বিল ২০১৬। যাতে এ ধরনের অপরাধে চরম সাজার কথা বলা হয়েছে।

যদিও আন্তর্জাতিক মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলির দাবি, অনেক সময়ই ব্যক্তিগত রাগ মেটাতে অপব্যবহার করা হচ্ছে এই আইনের।

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

নতুনখবর/সোআ

About The Author

Number of Entries : 2090

Leave a Comment

© 2011 Powered By Wordpress, Goodnews Theme By Momizat Team

Scroll to top