ঢাকাআজ সোমবার ২৫শে জুন, ২০১৭ ইং ১২ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ১লা শাওয়াল, ১৪৩৮ হিজরীরাত ২:৪৭

85 বার পড়া হয়েছে «

ছয়লক্ষ টাকা যৌতূক দেওয়ার পরও, গৃহবধুকে মারপিট করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ ।।

মোঃ ইলিয়াছ মোল্লা :   রাজবাড়ী জেলা সদরের উদয়পুরে যৌতুকের জন্য এক গৃহবধুকে নির্যাতন, মারধর করে বাড়ী থেকে বের করে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে । এ ঘটনায় ঐ গৃহবধূ সাড়ে তিন বৎসরে এক পুত্র সন্তান নিয়ে বিচারের জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরছে । যৌতুকলোভী স্বামী মোঃ হাফিজুল ইসলাম (৩০), ভাসুর আমির হোসেন, হাসান, শ্বশুর আবুল খায়ের মুন্সী, শাশুড়ি রোকেয়া গত প্রায় ১৫ দিন পূর্বে চার লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য  মারপিট করে  বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়,  গৃহবধু তানিয়া আক্তার (২৬) কে । সে বর্তমানে অসহায় অবস্থায় শিশু সন্তানকে নিয়ে বাবার ভাড়া বাসা রাজধানীর তুরাগে  অবস্থান করছে । অসহায় তানিয়া রাজবাড়ী জেলা সদরের উদয় পুর গ্রামের মোঃ জাকির হোসেনের মেয়ে । একই এলাকার গাবলা গ্রামের, আবুল খায়েরের ছেলে হাফিজুল ইসলামের সাথে প্রেমের সুত্র ধরে প্রায় ৬ বৎসর পূর্বে বিয়ে হয় । বিবাহের তিন মাসের মাথায় শুরু হয় হাফিজুলের স্ত্রী নির্যাতন এবং যৌতুকের দাবী । এভাবে নির্যাতনের এক পর্যায় মেয়ের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তানিয়ার দিন মুজর বাবা জাকির হোসেন বসত বাড়ির সাড়ে ৬শতাংশ জমি বিক্রি করে জামাই হাফিজুলকে চার লক্ষাধিক টাকা দেয় । কিছু দিন ভালো ভাবে চলার পর তানিয়ার কোল জুড়ে জন্ম নেয় একটি পুত্র সন্তান । হাফিজুল এবার আরও বেপরোয়া হয়ে আরও চার লক্ষ টাকা যৌতুকর দাবী করে বসে, তখন তানিয়া বলে আমার বাবা গরিব, ভিটা বাড়ি বিক্রি করে ইতি মধ্যে চার লাখ টাকা দিয়েছে এখন সে এতো টাকা কোথায় পাবে । তানিয়ার স্বামী, শ্বশুর, শাশুড়ি এবং ভাশুরদের একটাই কথা, স্বামীর সংসার করতে হলে টাকা তোমাকে দিতেই হবে বলে তানিয়ার ওপর চলতে থাকে অমানুষিক নির্যাতন । এক পর্যায় মেয়ে ও নাতির সুখের কথা চিন্তা করে, দিন মুজুর জাকিরের তিলতিল করে জমানো দুই লক্ষ টাকা তুলে দেয় জামাই হাফিজুলের হাতে । কিছু দিন ভালো চলার পর আবারো চার লক্ষ টাকা  যৌতুক চেয়ে বসে তানিয়ার শ্বশুর বাড়ির লোকজন । কিন্তু বর্তমানে তানিয়ার বাবার টাকা দেওয়ার মত কোন সামর্থ্যই নেই । তাই তানিয়াকে সহ্য করতে হয় অমানুষিক নির্যাতন । এক পর্যায় গত ১৫/৫/২০১৭ইং তারিখে ব্যাপক মারপিট করে সাড়েতিন বৎসরের শিশু সন্তান সহ তানিয়াকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয় । নিরুপয় তানিয়া শিশু সন্তানকে নিয়ে আশ্রয় নেয় তার বাবার বর্তমান ভাড়া বাসা রাজধানীর তুরাগের ধউর এলাকায় । সেখানেও গত ১৯/৫/২০১৭ইং তারিখে স্বামী মোঃ হাফিজুল ইসলাম, ভাসুর আমির হোসেন, হাসান, শ্বশুর আবুল খায়ের মুন্সী, শাশুড়ি রোকেয়া তানিয়ার বাবার বর্তমান ভাড়া বাসায় এসে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ ও বিভিন্ন রকম হুমকি দিয়ে যায় । এর প্রেক্ষিতে ভুক্তভোগী তানিয়া গত ৩১/৫/২০১৭ইং তারিখে তুরাগ থানায় একটি   সাধারন ডায়রি করেন, যার  নং- ১৩৫২ । নির্যাতিত অসহয় তানিয়া সঠিক বিচার পাওয়ার জন্য দেশের মানবাধিকার সহ  প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ।

নতুনখবর/সোআ

Comments

comments

পাঠকের কিছু জনপ্রিয় খবর

ছয়লক্ষ টাকা যৌতূক দেওয়ার পরও, গৃহবধুকে মারপিট করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ ।।


বিস্তারিত

মাদারীপুরে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে বাবা গ্রেপ্তার ।।


বিস্তারিত

টঙ্গীতে এক ওয়ার্কশপ শ্রমিককে কুপিয়ে হত্যা ।।


বিস্তারিত

নড়িয়ায় শিক্ষক কর্তৃক শিক্ষার্থীদের শারিরিক ও যৌন হয়রানীর অভিযোগ


বিস্তারিত

নড়িয়ায় মায়ের পরকিয়ায় বাধা দেয়ায় মেয়েকে হত্যার চেষ্টা, মা গ্রেফতার


বিস্তারিত

বংশালে গৃহকর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ


বিস্তারিত

সাভারে দেবরের হাতে ভাবী খুন


বিস্তারিত

ডাক্তার নার্স ছাড়াই চলছে হেমায়েতপুর জেনারেল হাসপাতাল


বিস্তারিত

নেত্রকোনায় সমাজকল্যাণ সমিতির নামে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ


বিস্তারিত

বই কিনতে হোটেলে চাকরি, মজুরি চাওয়ায় প্রাণ গেল স্কুলছাত্রের


বিস্তারিত