নড়াইলে বিদ্যুৎবিহীন ১৩৪টি বিদ্যালয় ডিজিটাল শিক্ষাবঞ্চিত শিক্ষার্থীরা Reviewed by Momizat on . নড়াইল জেলা প্রতিনিধি : নড়াইলে ১৩৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুতের সংযোগ নেই।ওই সব বিদ্যালয়ের ৫০ হাজার শিক্ষার্থী ডিজিটাল শিক্ষা থেকে বঞ্চিত। বিদ্যুৎ না থাকায় শিক নড়াইল জেলা প্রতিনিধি : নড়াইলে ১৩৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুতের সংযোগ নেই।ওই সব বিদ্যালয়ের ৫০ হাজার শিক্ষার্থী ডিজিটাল শিক্ষা থেকে বঞ্চিত। বিদ্যুৎ না থাকায় শিক Rating:
You Are Here: Home » জেলার খবর » নড়াইল » নড়াইলে বিদ্যুৎবিহীন ১৩৪টি বিদ্যালয় ডিজিটাল শিক্ষাবঞ্চিত শিক্ষার্থীরা

নড়াইলে বিদ্যুৎবিহীন ১৩৪টি বিদ্যালয় ডিজিটাল শিক্ষাবঞ্চিত শিক্ষার্থীরা

নড়াইল জেলা প্রতিনিধি : নড়াইলে ১৩৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিদ্যুতের সংযোগ নেই।ওই সব বিদ্যালয়ের ৫০ হাজার শিক্ষার্থী ডিজিটাল শিক্ষা থেকে বঞ্চিত। বিদ্যুৎ না থাকায় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের প্রতিনিয়ত ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে । এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট বিভাগের কোনো উদ্যোগ না থাকায় আদৌ তাঁরা বিদ্যুতের সংযোগ পাবেন কি না, এ নিয়ে অনিশ্চয়তায় রয়েছেন শিক্ষক ও অভিভাবকেরা। বিস্তারিত উজ্জ্বল রায়ের রিপোর্টে, নড়াইল জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, নড়াইল জেলায় মোট ৪৮৯টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এর মধ্যে নড়াইল সদর উপজেলায় ১৭৫, নড়াইলের লোহাগড়ায় ১৬০ ও নড়াইলের কালিয়ায় ১৫৪টি । এগুলোর মধ্যে ৩৫৫টি বিদ্যালয়ে বিদ্যুতের সংযোগ আছে। নড়াইলের লোহাগড়ার ধোপাদহ, নড়াইলের কালিয়ার চাপাইল-মুলশ্রী ও নড়াইল সদরের খলিশাখালী প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ১৩৪টি বিদ্যালয় অদ্যাবধি বিদ্যুতের সংযোগ পায়নি। ১৩৪টি বিদ্যালয়ের মধ্যে মাত্র ৩৫টি একটি করে খুঁটির অভাবে সংযোগ পাচ্ছে না। বিদ্যুৎ না থাকায় সরকারের প্রতিশ্রুত ডিজিটাল শিক্ষাব্যবস্থা থেকে তারা দূরে রয়েছে। নড়াইলের জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শাহ আলম বলেন, নড়াইল জেলার প্রায় প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ডিজিটাল পদ্ধতির বিভিন্ন সামগ্রী সরবরাহ করা হয়েছে। যেসব প্রতিষ্ঠান এখনো বিদ্যুতের সংযোগ পায়নি, সেগুলোর নামের তালিকা সংশ্লিষ্ট বিভাগে পাঠানো হয়েছে। বিদ্যালয়গুলোতে বিদ্যুতের সংযোগ না থাকায় জেলার প্রায় ৫০ হাজার শিক্ষার্থী ডিজিটাল শিক্ষাব্যবস্থা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। নড়াইল সদর উপজেলার খলিশাখালী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোসাম্মাৎ নূরজাহান বলেন, ‘আমার স্কুলটি নড়াইল-নওয়াপাড়া সড়কের পাশে। রাস্তার পাশ দিয়েই বিদ্যুতের লাইন গেছে। তিনটি খুঁটির অভাবে আমার স্কুল বিদ্যুতের সংযোগ পাচ্ছে না। এতে পাঠদানে সমস্যা হচ্ছে।’ বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা পর্ষদের সদস্য গোরাচাদ বিশ্বাস বলেন, ‘স্কুলে বিদ্যুৎ না থাকায় শিক্ষকেরা ছাত্রছাত্রীদের ডিজিটাল শিক্ষা দিতে পারছেন না। এতে স্কুলের ছেলেমেয়েরা পিছিয়ে পড়ছে। কবে বিদ্যুৎ-সংযোগ পাব জানি না।’নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার ধোপাদহ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছরিন আক্তার বলেন, ‘বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎ-ব্যবস্থা নেই। গরম পড়েছে। ছোট ছোট শিশুরা কষ্ট পাচ্ছে। তা ছাড়া ডিজিটাল পদ্ধতির সবকিছু দেওয়া হলেও বিদ্যুৎ না থাকায় তা চালু করা সম্ভব হচ্ছে না। এতে শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে পড়ছে।’ নড়াইল পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সহকারী ব্যবস্থাপক দিলীপ কুমার বাইন আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে জানান,  ‘বিদ্যুৎবিহীন এমন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের নামের তালিকা পাওয়া গেছে। সেগুলো সংশ্লিষ্ট বিভাগে পাঠানো হয়েছে। বরাদ্দ পাওয়া গেলে বিদ্যুৎ-সংযোগের কাজ শুরু করা যাবে। তবে কবে বরাদ্দ পাওয়া যাবে, তা বলা যাচ্ছে না।

নতুনখবর/সোআ

About The Author

Number of Entries : 2090

Leave a Comment

© 2011 Powered By Wordpress, Goodnews Theme By Momizat Team

Scroll to top