ঢাকাআজ বুধবার ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ৪ঠা শাওয়াল, ১৪৩৮ হিজরীসন্ধ্যা ৬:০৭

128 বার পড়া হয়েছে «

সাঈদীর রিভিউ আজকের কার্যতালিকায়

নিজস্ব প্রতিবেদক : আপিলে আমৃত্যু কারাদণ্ড পাওয়া জামায়াতে ইসলামীর সিনিয়র নায়েবে আমির মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর খালাস চেয়ে করা রিভিউ আবেদন এবং সাজা বৃদ্ধি চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষের করা রিভিউ আবেদন ‍শুনানির জন্য আজকের কার্যতালিকায় রয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত রবিবারের কার্যতালিকায় বিষয়টি শুনানির জন্য ৩০ নম্বর ক্রমিকে রাখা হয়েছে।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির আপিল বেঞ্চে সাঈদীর রিভিউ শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। বেঞ্চের অন্য চার বিচারক হলেন বিচারপতি মো. আব্দুল ওয়াহহাব মিঞ্চা, বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ও বিচারপতি মির্জা হোসাইন হায়দার।

গত ৬ এপ্রিল প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ সাঈদীর রিভিউ শুনানির জন্য ১৪ মে দিন ধার্য করেন।

২০১৪ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর তৎকালীন প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে সাঈদীর মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেন। রায় ঘোষণার এক বছর পর ২০১৫ সালের ৩১ ডিসেম্বর রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ হয়।

২০১৬ সালের ১২ জানুয়ারি সাঈদীর আমৃত্যু কারাদণ্ড বাড়িয়ে মৃত্যুদণ্ড চেয়ে রিভিউ আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। এর পাঁচ দিন পর ১৭ জানুয়ারি এ রায় থেকে খালাস চেয়ে রিভিউ আবেদন করেন মাওলানা সাঈদী। তার ৯০ পৃষ্ঠার রিভিউ আবেদনে আমৃত্যু কারাদণ্ড থেকে খালাস পেতে ১৬টি যুক্তি দেখানো হয়।

আপিলের রায়ে ১০, ১৬ ও ১৯ নম্বর অভিযোগে সাঈদীকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেন আপিল বিভাগ। ১০ নম্বর অভিযোগ বিসাবালিকে হত্যা, ১৬ নম্বর অভিযোগ তিন নারীকে অপহরণ করে আটকে রেখে ধর্ষণ এবং ১৯ নম্বর অভিযোগ প্রভাব খাটিয়ে ১০০-১৫০ হিন্দুকে ধর্মান্তরিত করার।

সংখ্যাগরিষ্ঠ মতে ৬, ১১ ও ১৪ নম্বর অভিযোগ থেকে তাকে খালাস দেওয়া হয়। ৬ নম্বর অভিযোগ লুণ্ঠনের, ১১ নম্বর হামলা ও লুণ্ঠনের এবং ১৪ নম্বর অভিযোগ ধর্ষণের।

৮ নম্বর অভিযোগের অংশবিশেষে সংখ্যাগরিষ্ঠ মতে সাঈদীকে খালাস দেওয়া হয়। একই অভিযোগের অংশবিশেষে সংখ্যাগরিষ্ঠ মতে তাকে ১২ বছর কারাদণ্ড দেন আপিল বিভাগ। অষ্টম অভিযোগটি হত্যা ও অগ্নিসংযোগের।

এ ছাড়া সংখ্যাগরিষ্ঠ মতে ৭ নম্বর অভিযোগে সাঈদীকে ১০ বছর কারাদণ্ড দেন আপিল বিভাগ। এই অভিযোগ নির্যাতন ও বাড়ি লুণ্ঠনের পর অগ্নিসংযোগ।

৮ নম্বর (ইব্রাহিম কুট্টি হত্যা) ও ১০ নম্বর অভিযোগের (বিসাবালি হত্যা) দায়ে সাঈদীকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিলেন ট্রাইব্যুনাল।

নতুনখবর/সোআ

Comments

comments

পাঠকের কিছু জনপ্রিয় খবর

বছরের অর্ধেক দিন বন্ধ সুপ্রিম কোর্ট


বিস্তারিত

চতুর্থ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রের বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জে পুলিশ এসল্ট মামলায় আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল!


বিস্তারিত

আগেও একটি বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার সানি


বিস্তারিত

মানিকগঞ্জে হত্যা মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ


বিস্তারিত

সাংবাদিক হাবিব সরোয়ার আজাদকে বিজ্ঞ আদালত জামিন দিয়েছেন


বিস্তারিত

‘তোরে জজ বানাইছে কেডা’ যারা বলে তাদের হাতে বিচার বিভাগ ছাড়া ঠিক হবে না


বিস্তারিত

জরুরি অবস্থায় বেআইনিভাবে অর্থ নিয়েছিল ডিজিএফআই: সুপ্রিম কোর্ট


বিস্তারিত

খালেদার ৩ মামলা স্থগিত


বিস্তারিত

সাঈদীর রিভিউ আজকের কার্যতালিকায়


বিস্তারিত

সুপ্রিম কোর্টে ছুটি শুরু, অবকাশকালীন বেঞ্চ গঠন


বিস্তারিত

মুফতি হান্নানের সঙ্গে দেখা করলেন চার স্বজন


বিস্তারিত

রাজন হত্যা: কামরুলসহ ৪ আসামির মৃত্যুদণ্ড বহাল


বিস্তারিত

প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি কারাগারে


বিস্তারিত

১৪ মার্চ খালেদা জিয়াকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ


বিস্তারিত

খালেদা জিয়া আদালতে যাচ্ছেন না আজ


বিস্তারিত

দুই মামলায় খালেদা জিয়ার আত্মপক্ষ সমর্থন ২ মার্চ


বিস্তারিত

ঢাকা আইনজীবী সমিতি নির্বাচনে ভোট চলছে


বিস্তারিত