মহেশপুরে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান ২ জঙ্গি নিহত ৩ পুলিশ কর্মকর্তা আহত ও আটক ৩ Reviewed by Momizat on . মহেশপুর (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা : ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার বজরাপুর গ্রামের হঠাৎ পাড়ায় জঙ্গী আস্তনায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বহিনীর  অভিযানে সন্দেহ ভাজন দুই জঙ্গী নিহ মহেশপুর (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা : ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার বজরাপুর গ্রামের হঠাৎ পাড়ায় জঙ্গী আস্তনায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বহিনীর  অভিযানে সন্দেহ ভাজন দুই জঙ্গী নিহ Rating:
You Are Here: Home » জেলার খবর » ঝিনাইদহ » মহেশপুরে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান ২ জঙ্গি নিহত ৩ পুলিশ কর্মকর্তা আহত ও আটক ৩

মহেশপুরে জঙ্গি আস্তানায় অভিযান ২ জঙ্গি নিহত ৩ পুলিশ কর্মকর্তা আহত ও আটক ৩

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা : ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার বজরাপুর গ্রামের হঠাৎ পাড়ায় জঙ্গী আস্তনায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বহিনীর  অভিযানে সন্দেহ ভাজন দুই জঙ্গী নিহত হয়েছে। নিহত দুই জঙ্গীকে নব্য জেএমবির সদস্য বলে জানান পুলিশ। জঙ্গী আস্তনায় অভিযানের সময় কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের এডিসি নাজমুল হাসান,গোয়েন্দা পুলিশের এসআই মহাসিন ও মুজিবুর রহমান জঙ্গীদের গুলিতে গুরুতর ভাবে আহত হন। আহতদেরকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও পরে দুপুরে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের এডিসি নাজমুল হাসানকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। রোববার ভোররাত থেকে মহেশপুর উপজেলার এসবিকে ইউনিয়নের বজরাপুর হঠাৎপাড়া গ্রামে জঙ্গী আস্তানা সন্দেহে জহুরুল ইসলামের একটি বাড়ী ঘিরে অভিযান শুরু করে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

অভিযানের মধ্যে সন্দেহ ভাজন দুই জঙ্গী নিহত হয়েছে বলে  পুলিশ জানায়। জঙ্গী অস্তানায় অভিযানকে কেন্দ্র করে আশপাশের এলাকায় সকাল থেকে ১৪৪ ধারা জারী করে মাইকিং করা হয়। জঙ্গী আস্তনার ২০০ মিটারের মধ্যে কোন লোককেই ঢুকতে দেয়নি আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারীর বহিনীর  সদস্যরা। বসতিপুর্ন এলাকা হওয়ায় স্থানীয় সংবাদকর্মিরা বাড়ীটির প্রায় ৩০০ মিটার দুরে অবস্থান নেয়। গোটা এলাকা ঘিরে রেখেছে পুলিশ-র‌্যাব ও গোয়েন্দা সংস্থার বিপুল সংখ্যক সদস্য।  দুপুরে পুলিশের খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি দিদার আহম্মেদ ঘটনাস্থলে আসেন। সন্দেহজনক জঙ্গী আস্তানা পরিদর্শন শেষে দুপুর ১২টার দিকে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি দিদার আহম্মেদ। পুলিশের খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি বলেন অভিযানে দুই জঙ্গী নিহত হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন ঘরের বাইরে পুলিশের সঙ্গে গুলি বিনিময় নিহত হয়। আরেকজন ঘরের ভিতরে আত্মঘাতীর বোমার বিস্ফোরনে নিহত হয়। নিহত দুইজন নব্য জিএমবির সদস্য। তাদের মধ্যে একজনের নাম তুহিন বলে জানাগেছে। ডিআইজি আরও বলেন ঘরের ভিতরে বিস্ফোরক দ্রব্য থাকতে পারে। এদিকে জঙ্গী আস্তনা সন্দেহে যে বাড়ি ঘিরে অভিযান চালানো হয়েছে সে বাড়ীর মালিকের নাম জহুরুল ইসলাম  বলে প্রতিবেশীরা জানায়। অভিযানের সময় বাড়ীর মালিক জহুরুল ইসলামসহ ৩ জনকে আটক করেছে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বহিনীর  সদস্যরা।এরিপোট লেখা পর্যন্ত সময় ঢাকা থেকে বোম ডিসপোজাল ইউনিট না আসায় এখনও অভিযান শুরু হয়নি।

নতুনখবর/সোআ

Leave a Comment