ঢাকাআজ সোমবার ২২শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং ৮ই কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ২রা সফর, ১৪৩৯ হিজরীরাত ১২:৫৮

127 বার পড়া হয়েছে «

শ্রেষ্ঠ নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে স্বার্থান্বেষী মহলের অপপ্রচারে ক্ষুব্ধ মাটিরাঙ্গাবাসী,ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী

গুইমারা(খাগড়াছড়ি)প্রতিনিধি : খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলায় পিছিয়েপড়া জনগোষ্ঠির জন্য মাঠ পর্যায়ে কাজ করে আসা সরকারের দক্ষ কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত দুইবারের শ্রেষ্ঠ নির্বাহী অফিসার হিসাবে নির্বাচিত মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বি.এম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগকে ভিত্তিহীন ও কাল্পনিক বলে দাবী করেছেন মাটিরাঙ্গার রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিরা। তারা বলেন,মাটিরাঙ্গা উপজেলায় ইউএনও হিসেবে যোগদানের পর থেকে তিনি সরকারের নানামুখি কর্মকান্ড বাস্তবায়নের পাশাপাশি জনগনের কল্যানে কাজ করে যাচ্ছেন।

ইতিমধ্যেই সরকার দলের ছত্রছায়ায় থাকা প্রভাবশালী একটি কুচক্রি মহল সারাদেশের মধ্যে দুই দুই বারের শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে নির্বাচিত মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বি.এম মশিউর রহমানকে বিতর্কিত করতে মাঠে নেমেছেন।তাঁর অর্জনকে ম্লান করে দিতে বিভিন্ন স্থানে কাল্পনিক অভিযোগের ভিত্তিহীন প্রচারনায় নেমেছে।নির্বাহী অফিসারের বিরুদ্ধে কাল্পনিক অপপ্রচারে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে মাটিরাঙ্গার সচেতন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা।তাদের অভিযোগ স্বার্থন্বেসী এ কুচক্রি মহলটি বিভিন্ন সময় নিরাত্তাবাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে পাহাড়ীদের নির্যাতন, হত্যা ও ধর্ষনের মতো কাল্পনিক অভিযোগের পর এবার একই কায়দায় মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বি.এম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে যাত্রিবাহী বাসে বিশ্ববিদ্যায়ের উপজাতীয় ছাত্রীকে জড়িয়ে কাল্পনিক অভিযোগ তুলেছে ।টাকার বিনিময়ে জনৈক সাংবাদিক’কে দিয়ে একটি অনলাইন পত্রিকায় এ সংক্রান্ত মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে হেনস্তাসহ প্রশাসন’কে বিতর্কিত করার চেষ্টা করেছে বলে দাবী করেছেন মাটিরাঙ্গাবাসী।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও মাটিরাঙ্গা প্রেসক্লাবের সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীর আলম বলেন, সম্প্রতি মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন আহবায়ক সুভাষ চাকমা মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বি.এম মশিউর রহমানের কাছে কিছু অন্যায় আবদার করেন। যা রক্ষা না করায় উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে বিভিন্ন মাধ্যমে এই কাল্পনিক গল্প প্রচার করেন। তিনিই টাকার বিনিময়ে সংবাদ মাধ্যমে তা প্রচার করেন। মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বি.এম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ আর ঐ সাংবাদিকের প্রকাশিত সংবাদের কোন ভিত্তি নেই বলেও দাবী করে এ ঘটনায় তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে যারা মিথ্যা অপপ্রচার ছড়িয়ে বর্তমান সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার মিশনে নেমেছে, তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করেন তিনি।মাটিরাঙ্গা প্রেসক্লাবের একজন সদস্য হয়েও স্থানীয় কোন সাংবাদিকের সাথে কোন প্রকার আলোচনা না করে টাকার কাছে বিক্রি হয়ে ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশ করায় সেই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি। এমন কাল্পনিক সংবাদ প্রকাশের সম্পূর্ণ দায়ভার তার একার বলেও মন্তব্য করেন প্রেসক্লাব সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীর আলম।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড খাগড়াছড়ি জেলা শাখার সভাপতি মো: হারুন মিয়া জানান, মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বি.এম মশিউর রহমান তিনি শুধু একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাই নন, তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তানও বটে। তাকে জড়িয়ে মনগড়া মিথ্যা অপবাদ দেয়া মানে বাংলাদেশের লক্ষ লক্ষ মুক্তিযোদ্ধা সন্তানকে কলংকিত করা। তাকে জড়িয়ে কাল্পনিক গল্প মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা কখনো মেনে নিবেনা। তিনি এ উদ্দেশ্য মূলক এ মিথ্যাচারের সাথে জতিদের আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানান।

মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ইউনিয় পরিষদ চেয়ারম্যান ফোরামের পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সম্পাদক হিরনজয় ত্রিপুরা ইউএনও বি.এম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগকে ভিত্তিহীন দাবী করে বলেছেন, তার মতো একজন কর্মকর্তা মানুষের উপকারই করতে পারে। তিনি বলেন, কাছ থেকে দেখা একজন মানুষের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের ভিত্তি খুজে পাওয়া যাচ্ছেনা। এ বিষয়ে স্থানীয় একজন সাংবাদিকের রিপোর্টের প্রসঙ্গ টেনে তিনি এ ধরনের সাংবাদিকতা ছেড়ে জনকল্যাণমুখী সাংবাদিকতা করারও আহবান জানান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বি.এম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সুবিধাবঞ্চিতদের অ-পপ্রচার ছাড়া আর কিছুই না এমন দাবী করে মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও প্যানেল মেয়র মো: আলাউদ্দিন লিটন এ মিথ্যাচারের সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে আসারও দাবী জানান। মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সুবাস চাকমা প্রত্যক্ষভাবে এ ধরনের অপপ্রচারে যুক্ত আছে, এটা আওয়ামীলীগের দলীয় সিদ্ধান্ত কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, অবশ্যই না। এটা যদি তিনি এমন কাজ করে থাকেন তবে তা ব্যাক্তি সুবাস চাকমা করছেন। এর সাথে আওয়ামীলীগের কোন সম্পৃক্ততা নেই।

এহেন অপপ্রচারের নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী তুলেছে মাটিরাঙ্গাবাসী।

উল্লেখ্য মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিএম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া ছাত্রী (উপজাতীয় চাকমা মেয়ে)কে ১৮ই এপ্রিল ২০১৭ইং খাগড়াছড়ি থেকে ঢাকা গামী হানিফ পরিবহনে যাত্রীবাসী বাসে ইভটিজিং করার অভিযোগ সংক্রান্ত সংবাদ একটি অনলাইন পত্রিকায় প্রকাশিত হলে ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে মাটিরাঙ্গাবাসী।

নতুনখবর/সোআ

Comments

comments

পাঠকের কিছু জনপ্রিয় খবর

গুইমারায় খাওয়ারের সাথ নেশা জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে অচেতন করে মোটর সাইকেল ছিনতাই


বিস্তারিত

বৃক্ষ রোপনের মাধ্যমে পার্বত্যাঞ্চলে পাহাড় ধস রোধ করা সম্ভব-ব্রিগেডিয়ার কামরুজ্জান


বিস্তারিত

মাটিরাঙ্গায় সাংবাদিক অন্তর মাহমুদের উপর যুবলীগ নেতার হামলাম


বিস্তারিত

উপজেলা প্রেসক্লাব গুইমারা’র ইফতার মাহফিল


বিস্তারিত

মাহে রমযানকে স্বাগত জানিয়ে গুইমারাতে বর্ণাঢ্য র‌্যালি


বিস্তারিত

শ্রেষ্ঠ নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমানের বিরুদ্ধে স্বার্থান্বেষী মহলের অপপ্রচারে ক্ষুব্ধ মাটিরাঙ্গাবাসী,ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী


বিস্তারিত

বৈসাবী’র রং লেগেছে খাগড়াছড়ির সবুজ পাহাড়ে


বিস্তারিত