প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি কারাগারে Reviewed by Momizat on . আদালত প্রতিবেদক : মুফতি হান্নান ও শরীফ শাহেদুলের রাষ্ট্রপতির কাছে করা প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছেছে। সোমবার দুপুরে এ তথ্য ন আদালত প্রতিবেদক : মুফতি হান্নান ও শরীফ শাহেদুলের রাষ্ট্রপতির কাছে করা প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছেছে। সোমবার দুপুরে এ তথ্য ন Rating:
You Are Here: Home » আইন-আদালত » প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি কারাগারে

প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি কারাগারে

আদালত প্রতিবেদক : মুফতি হান্নান ও শরীফ শাহেদুলের রাষ্ট্রপতির কাছে করা প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছেছে। সোমবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মিজানুর রহমান। এদিকে কারগার ও এর আশেপাশের বিভিন্ন পয়েন্টে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

জেল সুপার আরো জানান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ফাঁসি কার্যকরের নির্বাহী আদেশ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে কারাগারে এলে এবং নির্দেশনা পেলেই কারা বিধি মোতাবেক হরকাতুল জিহাদ (হুজি) নেতা মুফতি হান্নানসহ দুজনের মৃত্যদন্ড কার্যকর করা হবে।  তবে সোমবার দুপুর পর্যন্ত তাদের কোন আত্মীয়-স্বজন দেখা করতে আসেননি।কারা সূত্র জানায়, শনিবার রাতে ঢাকায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের পরপরই ফাঁসি কার্যকরের প্রস্তুতি শুরু হয়। জল্লাদদের নামের তালিকা তৈরি করে তাদের ফাঁসির মহড়া দেয়ার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত তিন আসামি রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন করেন। তাদের আবেদন গত ১৯ মার্চ সর্বোচ্চ আদালতে খারিজ হয়ে যায়। ফলে চূড়ান্ত বিচারেও ফাঁসির রায় বহাল থাকে।উচ্চ আদালতের আপিল শুনানি ও রিভিউ খারিজের পর তাদের ফাঁসি কার্যকরে আর কোনো বাধা নেই। মার্চের শেষ সপ্তাহে দুই ধাপে তারা রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চেয়ে আবেদন করেন। তবে শনিবার রাতে সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

সিলেটে হজরত শাহজালালের (রহ.) মাজারে গেলে ২০০৪ সালের ২১ মে ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড হামলার হয়। এতে দুই পুলিশসহ তিনজন নিহত ও ৪০ জন আহত হন। এ ঘটনায় ওইদিন কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশ। পরে এ ঘটনায় পুলিশ মুফতি হান্নাসহ সহযোগীদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ পত্র দেয়।এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার প্রচেষ্টা এবং অনেক মানুষকে হত্যার ঘটনায় নাম এসেছে মুফতি হান্নানের বিরুদ্ধে। এসব ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অন্তত: ১৩টি মামলার বিচার চলছে।

নতুনখবর/সোআ

Leave a Comment