ঢাকাআজ সোমবার ২১শে আগস্ট, ২০১৭ ইং ৬ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ২৯শে জিলক্বদ, ১৪৩৮ হিজরীসকাল ৬:৪৬

  • মোহাম্মদপুরে যুবলীগ কার্যালয় ভাঙচুর, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি লুট
  • জীবন যেমন চাই, তেমন হয়তো পাই না : মিথিলা
  • ‘হিন্দি ছাড়া অন্য আরও ভাষায় নির্মাণ হবে’: অমিতাভ রেজা
  • সালমান শাহ’র অপমৃত্যুর মামলা হত্যা মামলায় রূপান্তরের দাবি
  • সুনামগঞ্জে,দিরাইয়ে বিষাক্ত সাঁপের কামড়ে এক গৃহবধুর মৃত্যু
  • বোদায় গবীর মেধাবী ছাত্রীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ
  • সিদ্ধিরগঞ্জ থানা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় সেলিম ওসমান এমপির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ
  • সিদ্ধিরগঞ্জে ১৫ আগষ্ট বঙ্গবন্ধুর শাহাদাৎ বার্ষিকী ও ১২ আগষ্ট শোকর‌্যালি উপলক্ষে স্বেচ্ছাসেবকলীগ মহানগরের প্রস্তুতিমূলক বর্ধিত সভা
  • গভীরতম শোকের মাস আগস্ট
  • জলঢাকায় কালীগঞ্জ বদ্ধভুমি পরিদর্শনে এডিশনাল আইজিপি
  • 261 বার পড়া হয়েছে «

    প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি কারাগারে

    আদালত প্রতিবেদক : মুফতি হান্নান ও শরীফ শাহেদুলের রাষ্ট্রপতির কাছে করা প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে পৌঁছেছে। সোমবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মিজানুর রহমান। এদিকে কারগার ও এর আশেপাশের বিভিন্ন পয়েন্টে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

    জেল সুপার আরো জানান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ফাঁসি কার্যকরের নির্বাহী আদেশ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে কারাগারে এলে এবং নির্দেশনা পেলেই কারা বিধি মোতাবেক হরকাতুল জিহাদ (হুজি) নেতা মুফতি হান্নানসহ দুজনের মৃত্যদন্ড কার্যকর করা হবে।  তবে সোমবার দুপুর পর্যন্ত তাদের কোন আত্মীয়-স্বজন দেখা করতে আসেননি।কারা সূত্র জানায়, শনিবার রাতে ঢাকায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যের পরপরই ফাঁসি কার্যকরের প্রস্তুতি শুরু হয়। জল্লাদদের নামের তালিকা তৈরি করে তাদের ফাঁসির মহড়া দেয়ার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

    আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের পর মৃত্যুদন্ড প্রাপ্ত তিন আসামি রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন করেন। তাদের আবেদন গত ১৯ মার্চ সর্বোচ্চ আদালতে খারিজ হয়ে যায়। ফলে চূড়ান্ত বিচারেও ফাঁসির রায় বহাল থাকে।উচ্চ আদালতের আপিল শুনানি ও রিভিউ খারিজের পর তাদের ফাঁসি কার্যকরে আর কোনো বাধা নেই। মার্চের শেষ সপ্তাহে দুই ধাপে তারা রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা চেয়ে আবেদন করেন। তবে শনিবার রাতে সেই আবেদন খারিজ হয়ে যায়।

    সিলেটে হজরত শাহজালালের (রহ.) মাজারে গেলে ২০০৪ সালের ২১ মে ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড হামলার হয়। এতে দুই পুলিশসহ তিনজন নিহত ও ৪০ জন আহত হন। এ ঘটনায় ওইদিন কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশ। পরে এ ঘটনায় পুলিশ মুফতি হান্নাসহ সহযোগীদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ পত্র দেয়।এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার প্রচেষ্টা এবং অনেক মানুষকে হত্যার ঘটনায় নাম এসেছে মুফতি হান্নানের বিরুদ্ধে। এসব ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অন্তত: ১৩টি মামলার বিচার চলছে।

    নতুনখবর/সোআ

    Comments

    comments

    পাঠকের কিছু জনপ্রিয় খবর

    বিশ্বজিৎ হত্যা : হাইকোর্টের রায় ৬ আগস্ট


    বিস্তারিত

    আবারও জা‌মিন পে‌লেন আরাফাত সা‌নি


    বিস্তারিত

    মাগুরায় স্ত্রী-কন্যা হত্যার দায়ে স্বামীকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছে আদালত


    বিস্তারিত

    তাভেল্লা হত্যা: কাইয়ুমের ভাই মতিন জামিনে


    বিস্তারিত

    ১৫ বছরেও বিচার নেই মডেল তিন্নি হত্যার


    বিস্তারিত

    বছরের অর্ধেক দিন বন্ধ সুপ্রিম কোর্ট


    বিস্তারিত

    চতুর্থ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রের বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জে পুলিশ এসল্ট মামলায় আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল!


    বিস্তারিত

    আগেও একটি বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার সানি


    বিস্তারিত

    মানিকগঞ্জে হত্যা মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ


    বিস্তারিত

    সাংবাদিক হাবিব সরোয়ার আজাদকে বিজ্ঞ আদালত জামিন দিয়েছেন


    বিস্তারিত

    ‘তোরে জজ বানাইছে কেডা’ যারা বলে তাদের হাতে বিচার বিভাগ ছাড়া ঠিক হবে না


    বিস্তারিত

    জরুরি অবস্থায় বেআইনিভাবে অর্থ নিয়েছিল ডিজিএফআই: সুপ্রিম কোর্ট


    বিস্তারিত

    খালেদার ৩ মামলা স্থগিত


    বিস্তারিত

    সাঈদীর রিভিউ আজকের কার্যতালিকায়


    বিস্তারিত

    সুপ্রিম কোর্টে ছুটি শুরু, অবকাশকালীন বেঞ্চ গঠন


    বিস্তারিত

    মুফতি হান্নানের সঙ্গে দেখা করলেন চার স্বজন


    বিস্তারিত

    রাজন হত্যা: কামরুলসহ ৪ আসামির মৃত্যুদণ্ড বহাল


    বিস্তারিত

    প্রাণ ভিক্ষার আবেদন নাকচের কপি কারাগারে


    বিস্তারিত